খালাকে বিয়ে করে তা.লা.ক দিয়ে প্রবাসীর বউকে বিয়ে!

খালাকে বিয়ে করে তালাক দিয়ে প্রবাসীর বউকে বিয়ে!

খালাকে বিয়ে করে তালাক দিয়ে প্রবাসীর বউকে বিয়ে!
ধামরাই (ঢাকা) থেকে : বিবাহিত নিজের খালাকে ফুঁসলিয়ে বিয়ে করেন ঢাকার ধামরাইয়ের হাজিপুর গ্রামের মো. অপু মিয়া । কিছুদিন যেতে না যেতেই তিনি প্রতিবেশী সৌদি প্রবাসী মো. সানোয়ার হোসেনের স্ত্রী দুই সন্তানের জননী লাইজু আক্তারের সঙ্গে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন।

গত সোমবার দিবাগত রাতে অসামাজিক কাজে লিপ্ত থাকা অবস্থায় জনতার হাতে আটক হয় অপু আর লাইজু। তাদেরকে রাতভর আটকে রেখে মঙ্গলবার সকালে পুলিশে সোপর্দ করে গ্রামবাসী। পরে দুপুরে ধামরাই থানার মধ্যেই তাদের বিয়ে দেয়া হয়। তবে বিয়ের কিছু সময় আগে অপু তার স্ত্রী (খালা) ও লাইজু তার স্বামী সানোয়ারকে ডিভোর্স দেন।

স্থানীয়রা জানান, মো. অপু মিয়া ধামরাই সদর ইউনিয়নের হাজিপুর গ্রামের মো. আইয়ুব খান মমিনের ছেলে। বছর খানেক আগে সাভারের রাজাশন এলাকায় তার নানার বাড়ি থেকে বিবাহিত আপন খালাকে ফুঁসলিয়ে বিয়ে করে। পরে প্রবাসী সানোয়ার হোসেনের স্ত্রী লাইজুর সঙ্গে পরকীয়ার সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

প্রতিবেশীরা বিষয়টি টের পেয়ে সানোয়ার হোসেনকে জানায়। সপ্তাহ খানেক আগে তিনি দেশে আসেন। সোমবার রাতে সানোয়ার বাড়ির পাশের মসজিদে তারবিহ নামাজ পড়ছিলেন। এসময় তার স্ত্রী লাইজু আক্তার গোপন অভিসারে মিলিত হয় অপু মিয়ার সঙ্গে। পরে আশপাশের লোকজন তাদের আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

এ ব্যাপারে ধামরাই থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ রিজাউল হক দীপু বলেন, বিষয়টি শুনেছি। তবে কোনো পুলিশ সদস্য এ প্রেমিক যুগলের বিয়ে ও তালাকের রেজিস্ট্রিতে জড়িত নয়। গ্রামবাসী ও প্রেমিকযুগলের পরিবারের লোকজন মিলে বিবাহ বিচ্ছেদ ও বিয়ে সম্পন্ন করেছে।