ছাত্রীকে ”শিক্ষকের”কুপ্রস্তাবের অডিও ফাঁস, তোলপাড়

সদর, উপজেলার পাগলা উচ্চ বিদ্যালয়ের গণিত শিক্ষক মাসুদ রানার, আপত্তিকর অডিও ফাঁস হয়েছে৷ গতকাল বুধবার (৮ জুন) বিকেলে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অডিওটি ফাঁস হওয়ার, পর থেকে কুতুবপুরজুড়ে ব্যাপক তোলপাড় চলছে৷

ফাঁস হও,য়া ছ,য় মিনিটেরও বেশি দৈর্ঘ্যের অডিওতে মাসুদ রানাকে পাগলা উচ্চ, বিদ্যালয়ের একজন নারী শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানি ও কুপ্রস্তাব দিতে, শোনা যায়৷ শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত,

শিক্ষার্থীদের তোপের মুখে ওই শিক্ষককে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে৷ তবে মাসুদ, রানার দৃষ্টান্তমূলক কঠোর শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ- প্রতিবাদ, অব্যাহত রেখেছে বিদ্যালয়টির অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা।

জানা যায়, মাসুদ, রানার বিরুদ্ধে এর আগেও যৌন হয়রানির একাধিক, অভিযোগ এনেছেন শিক্ষার্থীরা৷ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক, ছাত্রী, জানান, ক্লাসে, কোচিংয়ে ও মোবাইলে অনেককেই কুরুচিপুর্ণ প্রস্তাব দিয়েছেন তিনি৷

এ ব্যাপারে, স্কুলের, এডহ,ক কমিটির সদস্য রেজাউল করিমকে জানিয়েও, কোনো, লাভ, হয়নি৷ বরং রেজাউল করিমের সাথে সুসম্পর্কের, দোহাই দিয়ে মাসুদ রানা দীর্ঘ বছর তার অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছিলেন। গতকালের ফাঁস হওয়া অডিও ক্লিপ তারই উদাহরণ৷

হয়রানির, স্বীকার ওই ছাত্রী জানান, মাসুদ রানা প্রায়ই তাকে ক্লাসে ও মোবাইল, ফোনে উত্ত্যক্ত করতেন৷ তাকে কল দিয়ে আপত্তিজনকভাবে, ভিডিও কলে আসতে বলতেন। শেষমেশ তিনি মাসুদ, রানার কথাগুলো রেকর্ড করার সিদ্ধান্ত নেন৷

সেখানে, সিদ্ধান্ত হয়েছে যে অডিও ফাঁসের ঘটনায় তদন্ত করা হবে এবং মাসুদ, রানা দোষী প্রমাণিত হলে তাকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে।

অডিও, ক্লিপের, সত্যতা , স্বীকার, করে মুঠোফোনে শিক্ষক মাসুদ রানা, বলেন, ‘আমি ভুল, করে, ফেলেছি, খুব চাপে আছি৷’সুত্রঃ bd24live