নেইমার ছিলেন না, ব্রাজিলও জেতেনি | Tech Max
Instant Articles

নেইমার ছিলেন না, ব্রাজিলও জেতেনি

এক ম্যাচ হাতে রেখেই গ্রুপের শীর্ষস্থান নিশ্চিত করে ফেলেছিল ব্রাজিল। ব্রাজিল কোচ তিতে তাই আজ গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে ইকুয়েডরের বিপক্ষে বিশ্রাম দিয়েছিলেন নেইমারসহ মূল একাদশের অনেককে। নেইমারকে ছাড়া খেলা ব্রাজিল জিততে পারেনি ম্যাচটি। গোইয়ানিয়ায় ইকুয়েডর রুখে দিয়েছে স্বাগতিকদের। ১–১ গোলে ড্র হয়েছে ম্যাচটি। এই ম্যাচে পাওয়া এক পয়েন্ট কোয়ার্টার ফাইনালে তুলে দিয়েছে ইকুয়েডরিয়ানদের।

এই ম্যাচের আগে টানা ১০ ম্যাচ জেতা ব্রাজিলই আজ প্রথম গোলটি দিয়েছে। ৩৭ মিনিটে এদের মিলিতাওয়ের হেড এগিয়ে দেয় ব্রাজিলকে। ৫৩ মিনিটে আনহেল মেনার গোলে সমতায় ফেরে ইকুয়েডর। একই সময়ে অনুষ্ঠিত গ্রুপের অন্য ম্যাচে ভেনেজুয়েলা পেরুর কাছে হেরে গেছে ১–০ গোলে।

চার ম্যাচে মাত্র ২ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ পর্ব শেষ করে ‘বি’ গ্রুপ থেকে বিদায় নিয়েছে ভেনেজুয়েলা। অন্যদিকে তিনটি ড্রতে ৩ পয়েন্ট পাওয়া ইকুয়েডর গ্রুপের চতুর্থ দল হিসেবে উঠেছে কোয়ার্টার ফাইনালে। কোয়ার্টার ফাইনালে দলটি মুখোমুখি হবে ‘এ’ গ্রুপের শীর্ষ দলের। আগামীকাল সকালে নির্ধারিত হবে আর্জেন্টিনা না অন্য কাউকে শেষ আটে প্রতিপক্ষ হিসেবে পাবে ইকুয়েডর তা।

ব্রাজিল গ্রুপ পর্ব শেষ করেছে ৪ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে। ‘বি’ গ্রুপের শীর্ষ দলটি শেষ আটে পাবে উরুগুয়ে কিংবা চিলিকে। আগামীকাল প্যারাগুয়ে উরুগুয়েকে হারিয়ে দিলে লুইস সুয়ারেজদের প্রতিপক্ষ হিসেবে পাবে নেইমাররা।ব্রাজিল আজ শুধু নেইমারকেই নয় প্রথম একাদশে রাখেনি থিয়াগো সিলভা, কাসেমিরো, রিচার্লিসন ও গ্যাব্রিয়েল জেসুসদের। বিকল্পরা অবশ্য আলো ছড়াতে পারেননি। ভালো খেলে কোচ তিতকে মধুর যন্ত্রণাও উপহার দিতে পারেননি তাঁরা। তবু ম্যাচের প্রথম গোলটি পেয়ে গিয়েছিল ব্রাজিলই। ৩৭ মিনিটে এভারটনের ক্রস থেকে হেডে গোল পেয়ে যান এদের মিলিতাও।

১–০ গোলে এগিয়ে থাকা ব্রাজিল দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে বাজে খেলতে শুরু করে। এই সুযোগে সমতায় ফেরে ইকুয়েডর। দল না হেরে যায়, এই আশঙ্কা থেকে কোচ তিতে ডগলাস লুইজের বদলি হিসেবে মাঠে নামিয়ে দেন কাসেমিরোকে। রিয়াল মাদ্রিদ তারকা মাঠে নামতেই আবার নিজেদের ফিরে পায় ব্রাজিল। তবে গোল করার মতো পরিষ্কার সুযোগ তৈরি করতে পারেনি ব্রাজিলিয়ানরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button