নেশার টাকার জন্য শতবর্ষী মাকে পিটিয়ে পা ভেঙে দিলো ছেলে

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ায় নেশার টাকার জন্য শতবর্ষী এক মাকে পিটিয়ে পা ভাঙার অভিযোগ উঠেছে ছেলের বিরুদ্ধে। এ ঘটনার পর থেকে ছেলে মোতালেব হোসেন পাঙ্কুকে (৫০) খুঁজছে পুলিশ।

সোমবার (২০ জুন) রাত ১০টার দিকে উপজেলার এনায়েতপুর ইউনিয়নের দুলমা সাপমারা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত শতবর্ষী ওই নারীর নাম সোলেমান নেছা। তিনি ওই এলাকার মৃত হাসমত আলীর স্ত্রী।

মঙ্গলবার (২১ জুন) বিকেলে স্থানীয় ইউপি সদস্য শাহজাহান মিয়া জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। শাহজাহান মিয়া বলেন, মোতালেব হোসেন পাঙ্কু চায়ের দোকানে কাজ করতেন। এক পর্যায়ে তিনি মদ ও ইয়াবায় আসক্ত হয়ে বেপরোয়া হয়ে ওঠেন। নেশার টাকার জন্য পাঙ্কু তার মাকে মাঝেমধ্যেই মারধর করতেন।

তিনি আরও বলেন, ঘটনার দিন মদ্যপ অবস্থায় পাঙ্কু তার মায়ের কাছে নেশার টাকা চান। কিন্তু টাকা না দেওয়ায় নেশাগ্রস্ত পাঙ্কু ঘরের দরজা ভেঙে বৃদ্ধা মাকে পিটিয়ে আহত করেন। এর ফলে তার মায়ের বাম পা ভেঙে যায়। এ সময় মোতালেব তার প্রতিবন্ধী বোন জামেলা খাতুনকেও মারধর করেন।

পরে চিৎকার শুনে বাড়ির অন্যরা এসে তাদের উদ্ধার করে। এ ঘটনার পরদিন (মঙ্গলবার) সকালে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে বৃদ্ধা মাকে চিকিৎসা দেওয়া হয়।
এ বিষয়ে ফুলবাড়িয়া থানার উপ-পরিদর্শক এসআই মো. হানিফ জাগো নিউজকে বলেন, স্থানীয়দের কাছে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। তবে ছেলে মোতালেবকে পাওয়া যায়নি। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

আহত সোলেমান নেছার পরিবারকে থানায় অভিযোগ করার জন্য বলা হয়েছে বলেও জানান এসআই মো. হানিফ।