প্রেমের টানে ইসলাম গ্রহণ করলেন হিন্দু পরিষদের নেতা

এক নারীর প্রেমের টানে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ নেতা পার্থ সারথী বিশ্বাস ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন। সেই সঙ্গে এক সন্তানের জননী ওই নারীর হাত ধরে পালিয়ে গেছেন তিনি।

সোমবার বিকেলে মাগুরা জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সনজিৎ কুমার বিশ্বাস সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। মাগুরা জেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সনজিৎ কুমার বিশ্বাস জাগো নিউজকে বলেন, সদর থানা কমিটির সদস্য সচিব পার্থ সারথী বিশ্বাস নিজের থেকে প্রায় ১০ বছরের বড় এক গৃহবধূকে নিয়ে পালিয়ে গেছেন।

ওই গৃহবধূর ১৮ বছর বয়সী একটি ছেলেসন্তান রয়েছে। দীর্ঘদিন প্রেমের সম্পর্কের পর একপর্যায়ে ধর্মত্যাগ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে ওই মুসলিম নারীর সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন তিনি।

এ ঘটনায় পার্থ সারথী বিশ্বাসকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে বলে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সনজিৎ কুমার নিশ্চিত করছেন।এছাড়া পার্থ সারথী বিশ্বাস দলের নাম ভাঙিয়ে বিভিন্ন সরকারি অফিস-আদালতে অবৈধভাবে সুযোগ-সুবিধা নিয়েছেন বলেও অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর জেলাজুড়ে আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়। মাগুরা শহরের হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান সম্প্রদায়সহ সব শ্রেণি-পেশার মানুষের মুখে এখন এই আলোচনা।