The Latest Technology Updates Here

ব্রেকিং নিউজঃ করিনাকে দুই বাচ্চার মা করে ঘাড় ধাক্কা দিয়ে বের করে দিলেন সইফ! জানুন আসল কাহিনী

বলিউড মানেই রঙিন জগত আর তারসাথে তারকাদের ঝাঁ চকচকে জীবন। তবে এই রঙিন জীবনের মধ্যে কখনো সখনো বেরঙিন রংও সামনে চলে আসে। কাপল গোলস সেট করা তারকাদের জীবনেও আসে বিচ্ছেদ, আর এমন উদাহরন কিছু কম নেই। সম্প্রতি শোনা যাচ্ছে এই বিচ্ছেদের খাতাতেই নাকি নাম লেখাতে চলেছেন নবাব পতৌদি সাইফ আলি খান ও করিনা কাপুর খান! সম্প্রতি তাদের মধ্যের অন্তকলহ চলে এসেছে সামনে। এমনও গুঞ্জন ছড়িয়েছে সইফ আলি খান নাকি বাড়ি থেকে বেরও করে দিয়েছেন করিনাকে! জানুন সত‍্যিতা।

দাম্পত্য জীবনের এক দশক পার করতে চললেন সইফ আলি খান এবং করিনা কাপুর। ২০০৮ সালেই একে অপরের কাছে এসেছিলেন তারা। বেশ কয়েক বছর সম্পর্কে থাকার পর ২০১২ সালে বিয়ে করেন তারা। এত বছর ধরে সুখী দাম্পত্যের সংজ্ঞা স্থাপন করেছিলেন এই তারকা দম্পতি। দুই সন্তানকে নিয়ে সুখী গৃহকোণ সাজিয়েছিলেন। তবে সাম্প্রতিক এক ছবির সূত্র ধরে মনে করা হচ্ছে সেই সুখী গৃহকোণেই নেমে এসেছে অন্ধকার।

কিছুদিন আগেই করিনা কাপুর এবং তার দুই ছেলের একটি বিশেষ ছবির ভাইরাল হয়েছে যেখানে দেখা যাচ্ছে করিনা বেশ চিন্তিত অবস্থায় রয়েছেন। তার চোখে মুখে চিন্তার ভাঁজ স্পষ্ট, চেহারা কোনো জৌলুসও নেই। ছবি দেখলে এক মুহূর্তের জন্য এটাই মনে হবে যে সাইফ আলী খান করিনাকে ছেলেদের সাথেই বাড়ি থেকে বেরিয়ে যেতে বলেছেন।

তবে এই ধারণা একেবারেই সত্যি নয়। ছবিটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই সকলেই সইফের ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন কিন্তু আদপে বিষয়টি হলো অভিনেত্রী নিজে ছেলেকে নিয়ে কোথাও একটা বেরিয়েছিলেন যেখানে সেদিন মেকআপ করতে ভুলে যান। তার সেই জৌলুসবিহীন ত্বক, মলিন মুখ দেখেই অনেকে মনে করেছিলেন তার বাড়িতে কোনো সমস‍্যা হয়েছে ও তিনি ছেলেকে নিয়ে বাড়ি থেকে বেরিয়ে গেছেন। পরবর্তীতে যদিও এই ভ্রম সংশোধন করে দিয়েছেন অভিনেত্রী নিজেই।

Comments are closed.