Uncategorized

বড় ভাই হাদিসুরের মরদেহ নিয়ে বাড়ির পথে ছোট ভাই

ইউক্রেনের অলভিয়া বন্দরে রকেট হাম’লায় নিহ’ত ‘এমভি বাংলার সমৃদ্ধি’ জাহাজের প্রকৌশলী হাদিসুর রহমানের ‘ম’রদেহ গ্রহণ করেছেন তার ছোট ভাই গোলাম মাওলা প্রিন্স। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন বরগুনা-২ আসনের এমপি শওকত হাসানুর রহমান রিমন। ভাইয়ের কফিন ছুঁয়ে কা’ন্নায় ভে’ঙে পড়েন প্রিন্স।

তার আহাজারিতে বিমানবন্দরের পরিবেশ ভারী হয়ে উঠে। এরপর বিমানবন্দরের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে বরগুনার বেতাগীর হাসনাবাদ ইউনিয়নের কদমতলা গ্রামে রওনা হন পরিবারের সদস্যরা।

ম’রদেহ গ্রহণ করার পর এমপি শওকত হাসানুর রহমান রিমন সাংবাদিকদের বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কঠিন পদক্ষে’পের কারণে আমরা হাদিসুরের ম’রদেহ তার বাবা মায়ের কাছে পৌঁছে দিতে পারছি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার দায়িত্ব পালন করেছেন,

বাকি যা কিছু করার তিনি করবেন। এর আগে সোমবার বেলা ১২টার পর হাদিসুরের ম’রদেহ বহনকারী টার্কিশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট ঢাকার হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে অবতরণ করে। হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নির্বাহী পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন এএইচএম তৌহিদ-উল আহসান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

হাদিসুর রহমানের ম’রদেহ বুঝে নিতে বিমানবন্দরে উপস্থিত আছেন তার চাচা মিজানুর রহমান, হারুনুর রশিদ ও আব্দুল জব্বার, খালু তসলিম আহমেদ লাবু ও খালা শিরিন আক্তার। অ’সুস্থতাজনিত কারণে হাদিসুরের বাবা-মা বিমানবন্দরে আসতে পারেননি। শনিবার বিকেলে হাদিসুরের বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, পারিবারিক কবরস্থানে এরই মধ্যে কবরের নমুনা করে রাখা হয়েছে। বিদেশ বিভুঁইয়ে বীরের মতো প্রাণ হারানো হাদিসুরকে শেষবারের মতো এক নজর দেখতে আসা লোকজন যেন কোনো ঝক্কি-ঝা’মেলা ছাড়াই তাকে দেখতে পারে এজন্য নেয়া হয়েছে সব প্রস্তুতি।

Related Articles