ভিক্ষুকের মরদেহের পাশে থাকা ট্রাঙ্কে মিলল লাখ টাকা

ভিক্ষুকের মৃতদেহ উদ্ধার করতে গিয়ে তার দেহের পাশে রাখা ট্রাঙ্ক থেকে উদ্ধার করা হয়েছে কয়েক লাখ টাকা। মরদেহ উদ্ধারের পরিবর্তে টাকা গুনতেই ব্যস্ত হয়ে পড়ে স্থানীয়রা।

জানা যায়, ভারতের উত্তর দিনাজপুরের ইসলামপুরের ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে বাস করতেন কনিকা মোহান্ত। ভিক্ষাবৃত্তি করে দিন পার করতেন তিনি। মা ও দুই বোনের সঙ্গে ত্রিপল ও বাঁশ দিয়ে তৈরি ঘরে থাকতেন তিনি।

পাঁচদিন আগেই মৃত্যু হয়ে কনিকার। তবে অসুস্থ মা এবং বোন সেটা বুঝতে পারেনি একদমই। মঙ্গলবার সকালে এলাকার একজন কনিকাদেবীর খোঁজে তার বাড়িতে গেলে জানা যায় তিনি মারা গেছেন। খবর পাওয়া মাত্রই সেখানে জড়ো হন স্থানীয়রা।

সেই সময় কনিকাদেবীর দেহের পাশে থাকা কয়েকটি ট্রাঙ্কে নজর পড়ে স্থানীয়দের। সেগুলো খুলতেই চোখ কপালে প্রতিবেশীদের। ট্রাঙ্কে রয়েছে প্রচুর টাকা। একশো থেকে পাঁচশো টাকার নোট। ছিল দশ, কুড়ি পঞ্চাশ টাকাও। এছাড়া খুচরা পয়সাও ছিল প্রচুর।

এসময় দেহ উদ্ধার ভুলে টাকা গুনতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন স্থানীয়রা। জানা গেছে, ভিক্ষুক ওই মহিলার ট্রাঙ্ক থেকে উদ্ধার করা হয়েছে কয়েক লাখ টাকা।
বোনের মৃত্যুর খবর পেয়ে বাড়িতে যান তার ভাই বাবলু মোহান্ত। শেষকৃত্যে ব্যয়ের পর বোনের জমানো টাকা দিয়ে মায়ের চিকিৎসা করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। সেই সঙ্গে বাড়িঘর মেরামত করা হবে।