মসজিদ কমিটির সভাপতির মেয়েকে নিয়ে উধাও ইমাম

ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ধরঞ্জী ইউনিয়নের উচনা দত্তেরপাড়া গ্রামে। ঘ’ট’নাটি এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে উভ”য় পক্ষ দরকষাকষির মাধ্যমে ২লক্ষ টাকায় আপোষ মিমাংসা ক’রেছে বলেও জানা গেছে। সরেজমিনে গেলে এলাকাবাসী জানায়, উচনা দত্তের পাড়া গ্রামের পুরাতন জামে মসজিদে দীর্ঘদিন যাবত,

ঈমাম হিসাবে একই গ্রামের মজনু মিয়ার পুত্র দুই সন্তানের জনক মাওলানা রুবেল হোসেন (৪০) ঈমামতি ক’রে আসছিলেন। এরই সূত্র মসজিদ কমিটির সভাপতির ৮ম শ্রেণি পড়ুয়া মেয়ের সাথে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে উঠে। এমতবস্থায় গত শুক্রবার (৪ই জুন) দিবাগত রাতে ঐ ইমাম মেয়েটিকে নিয়ে অজানার উদ্দেশ্যে পাড়ি জমায়।

মেয়েকে বাড়ীতে দেখে পরিবারের লোকজন বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুজি করে না পেয়ে পরদিন শনিবার মেয়ের বাবা বাদি হয়ে পাঁচবিবি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। থানায় অভিযোগের পর রবিবার ভোরে মেয়েটিকে তার বাড়ির সামনে রেখে পালিয়ে যায় ঈমাম।

এদিকে উক্ত ঘটনাটি এলাকায় চাউর হতে থাকলে উভয় পক্ষের লোকজন বিষয়টি ২লক্ষ টাকায় আপোষ মিমাংসা করেছে বলে জানা যায়। এবিষয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল গনি বলেন ঘটনাটি লোকে মুখে শুনতেছি। কিন্তু কোন পক্ষই আমার নিকট আসেনি।

মিমাংসার বিষয় আমার জানা নেই।মসজিদ কমিটির সভাপতি ও মেয়ের বাবার নিকট মোবাইল ফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মেয়ের কথা চিন্তা করে আপোষ করেছি। কত টাকা নিয়ে আপোষ করেছেন এমন প্রশ্ন করলে তিনি ফোনটি অন্যজনকে ধরিয়ে দেন।