মোশাররফ করিমের মতো অভিনয়শিল্পী পশ্চিমবঙ্গেও আর দেখা যায় না

বাংলাদেশের ওয়েব সিরিজ ‘মহানগর’ দেখে মুগ্ধ হয়েছেন ভারতের বাংলা সিনেমার দাপুটে অভিনয়শিল্পী প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। নিজের ভালো লাগার কথা তিনি মনের মধ্যে চেপে রাখতে পারেননি। আজ রোববার দুপুরে ফোন করে জানিয়েছেন সিরিজটির পরিচালক আশফাক নিপুণকেও।

আর নিপুণও তা নিজের ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে বন্ধু ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের সঙ্গে শেয়ার করেছেন।

প্রসেনজিতের কাছ থেকে ফোন পেয়ে সম্মানিত বোধ করেছেন পরিচালক আশফাক নিপুণ। তিনি লিখেছেন, ‘আমি অত্যন্ত সম্মানিত বোধ করছি! ভারতের কিংবদন্তি অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় ফোন করে “মহানগর”–এর ভূয়সী প্রশংসা করেছেন! তাঁর সঙ্গে প্রায় ১৫ মিনিট কথা হয়েছে , যার পুরোটাই ছিল ‘মহানগর’ নিয়ে। এর গল্প, অভিনয়, অভিনয়শিল্পী ও কলাকুশলী—সবকিছু নিয়ে দারুণ উচ্ছ্বসিত তিনি।’




কথায় কথায় প্রসেনজিৎ জানান, ওয়েব সিরিজ ‘মহানগর’–এর গল্প বলার ধরন এবং প্রত্যেক অভিনয়শিল্পীর অভিনয়ে তিনি মুগ্ধ। বিশেষ করে ওসি হারুন চরিত্রে মোশাররফ করিমের অভিনয়ে তিনি মুগ্ধ। প্রসেনজিতের মতে, মোশাররফ করিমের মতো অভিনয়শিল্পী পশ্চিমবঙ্গেও আর দেখা যায় না।

Related Posts
1 of 4

নিপুণ তাঁর ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, ‘বুম্বাদা (প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়) শিশুর মতো আগ্রহ নিয়ে “মহানগর”–এর শুটিং নিয়ে একের পর এক প্রশ্ন করে যাচ্ছিলেন, ঋতুপর্ণ ঘোষের সিনেমার প্রসঙ্গ টানলেন। উৎপল দত্তের কথা বলছিলেন। আমি আমার কানকে বিশ্বাসই করতে পারছিলাম না! ইউনিটের সবাইকে সালাম আর শুভেচ্ছা জানিয়ে ফোন রাখার আগে বারবার জোর দিয়ে বললেন, আপনার সিনেমা বানানো উচিত। সিরিজ তো বানাবেনই, কিন্তু আপনার উচিত সিনেমা বানানো। সিনেমা আপনার জায়গা।’




সবশেষে আশফাক নিপুণ প্রসেনজিতের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে লিখেছেন, ‘বিনয়ের সঙ্গে মন থেকে সম্মান জানাচ্ছি। আপনার এমন কথা আমাকে আরও গল্প বলার উৎসাহ দিয়েছে। ধন্যবাদ বুম্বাদা।’

২৫ জুন থেকে ওটিটি প্ল্যাটফর্ম হইচইেয় মুক্তি পায় ওয়েব সিরিজ ‘মহানগর’। প্রথম দিন থেকেই এটি দর্শকমন জয় করেছে, এ খবর সবারই জানা। এই ওয়েব সিরিজ জয় করেছে দেশের অনেক তারকার হৃদয়ও। এই ওয়েব সিরিজে অভিনয় করেছেন মোশাররফ করিম, মোস্তাফিজুর নূর ইমরান, জাকিয়া বারি মম, লুৎফর রহমান জর্জ, শাহেদ আলী, শ্যামল মাওলা, খাইরুল বাসার, নাসির উদ্দিন খান, নিশাত প্রিয়ম, রুকাইয়া জাহান চমক।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More