১২ বছরের সংসারে স্ত্রীর মন পাননি স্বামী, অবশেষে..

বিয়েটা হয় ধুমধামের সঙ্গে। কয়েক বছর সংসার খুব ভালোভাবেই চলছিল। কিন্তু স্ত্রীর জীবনে প্রবেশ করে তৃতীয় পুরুষ। এরপর থেকে সংসার থেকে সুখ নামক পাখিটি উড়ে যায়। অবশেষে ১২ বছর সংসার কারার পর স্ত্রীর মন জয় করতে না পেরে স্ত্রীকে

ডিভোর্স দিয়ে পরকীয়া প্রেমিকের হাতে তুলে দিলেন স্বামী।সম্প্রতি ভারতের পশ্চিমবঙ্গে অদ্ভুত এ ঘটনা ঘটেছে।ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে জানায়, ২০০৯ সালে আলিপুরদুয়ারের ফালাকাটার বিয়ে হয় ঐ যুগলের। প্রথম কয়েক

বছর ভালোই ছিল। স্ত্রীর জীবনে দ্বিতীয় পুরুষ আসার পর থেকে সমস্যার শুরু। সংসারে দূরত্ব বাড়তে থাকে। শাঁখা-সিঁদুর পরা বন্ধ করে দিয়েছিলেন স্ত্রী। বেশিরভাগ সময় ব্যস্ত থাকতেন মোবাইলে। এসব কিছুই ধরা পড়ে স্বামীর নজরে। কিন্তু মাথা গরম করে উল্টাপাল্টা কিছু করে বসেননি তিনি।

প্রথমে নিজ থেকেই বিয়ে বিচ্ছেদ করেন সেই যুবক। এরপর সাবেক স্ত্রীর সঙ্গে তার প্রেমিকের বিয়ের আয়োজন করেন তিনি।

জানা যায়, কোচবিহারের তুফানগঞ্জ শহরের এক যুবকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল ঐ তরুণীর। গত সোমবার (২০ জুন) প্রথমপক্ষের স্বামী দাঁড়িয়ে থেকে তার সাবেক স্ত্রীর ও প্রেমিকের চার–হাত এক করে দিয়েছেন। রেজিস্ট্রির মাধ্যমে নতুন জীবন শুরু করেছেন তারা। আর বুকে পাথর রেখে বিদায় জানান আগের স্বামী।