স্বামীর ‘গোপন’ বিয়ে, জানতেই ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিলেন প্রথম স্ত্রী

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে স্বামীর দ্বিতীয় বিয়ের খবর শুনে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে ৩২ বছর বয়সী খালেদা আক্তার আত্মহত্যা করেছেন। শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে জয়দেবপুর-যমুনা সেতু রেল সড়কের উপজেলার ধেরুয়া রেলসেতু এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

খালেদা একই উপজেলার গোড়াই ইউনিয়নের রশিদ দেওহাটা গ্রামের আনোয়ার হোসেনের প্রথম স্ত্রী। স্থানীয়রা জানায়, খালেদা-আনোয়ারের সংসারে তিন সন্তান রয়েছে। দুই বছর আগে দেওহাটা গ্রামের মোহাম্মদ আলীর মেয়ে রাশেদা আক্তারকেও গোপনে বিয়ে করেন আনোয়ার।

বিষয়টি সপ্তাহখানেক আগে জানতে পারেন খালেদা। এরপর থেকেই এ নিয়ে কলহ দেখা দেয়। এরই জেরে শনিবার সকালে আনোয়ারের সঙ্গে খালেদার ঝগড়া হয়। একপর্যায়ে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ধেরুয়া রেলসেতু এলাকায় ঈশ্বরদী থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী ঢাকা কমিউটার ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেন খালেদা।

এ বিষয়ে মির্জাপুর রেলওয়ের স্টেশন মাস্টার মো. কামরুল হাসান বলেন, খবরটি গাজীপুরের জিআরপি পুলিশকে জানানো হয়েছে। তারা এ বিষয়ে এ ব্যবস্থা নেবে।