মেহেদীর রং না মিটতেই কলিকে বিধবা করলো সন্ত্রাসীরা

হাতে মেহেদীর রং না মিটতেই বিধবা হতে হলো কলিকে। কক্সবাজারের চকরিয়ায় জমি নিয়ে বিরোধে মো. সোহেল রানা (২৮) নামে সাবেক এক ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। শনিবার (২৮ নভেম্বর) দিবাগত রাত দেড়টার দিকে পৌরসভার চার নম্বর ওয়ার্ডের ভরামুহুরীস্থ হাজিপাড়ায় হামলার এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সোহেল রানা পৌরসভার সাত নম্বর ওয়ার্ডের পালাকাটা হাসেম মাষ্টার পাড়ার আবদুর রকিমের ছেলে। তিনি চকরিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক ছিলেন।

সোহেলের বাবা আবদুর রকিম জানান, ‘চকরিয়ার ভরামুহুরী হাজি পাড়ায় তাদের ক্রয়কৃত একটি জায়গা রয়েছে। সেই জায়গা দখলে নেওয়ার চেষ্টা চালায় ভূমিদস্যু-সন্ত্রাসীরা। খবর পেয়ে তার ছেলেসহ আরও কয়েকজন সেখানে ছুটে যায়।

সেখান থেকে ফেরার পথে একা পেয়ে হাজিপাড়ার নুরুল আলম ও তার সাঙ্গোপাঙ্গরা সোহেলকে পেছন থেকে হাতুড়ি, গাছের বাটাম দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপায়। এতে ঘটনাস্থলেই পড়ে থাকে সোহেলর নিথর দেহ। পরে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।’

এদিকে, গত ৪ নভেম্বর সোহেলের সঙ্গে বিয়ে হয় পেকুয়ার কৃষকলীগ নেতা মেহের আলীর মেয়ে কলির। বিয়ের ২৪ দিনের মাথায় স্বামী সোহেলকে হারাল নববিবাহিতা কলি।

এ ব্যাপারে চকরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আশরাফ হোসেন জানান,‘হামলার খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালিয়ে একজনকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃত আসামি চকরিয়া পৌরসভার হাজিপাড়ার কবির আহমদের ছেলে আবদুল মান্নান (৩৪)। এ ঘটনায় জড়িত অন্যদেরকেও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।’

এ ঘটনায় নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পেলে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

এআই//এনএস/