পালিয়ে বিয়ে করতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার, প্রেমিকসহ আটক ৫

পালিয়ে বিয়ে করতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার, প্রেমিকসহ আটক ৫

গোবিন্দগঞ্জে এক কিশোরী ‘গণধর্ষণে’র শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর প্রেমিক শিমুল মিয়াসহ ছয়জনকে আটক করেছে পুলিশ।

গতকাল রোববার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার মহিমাগঞ্জ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আটক অন্যরা হলেন, রাখাল বুরুজ ইউনিয়নের কাজীপাড়া নাওভাংগা গ্রামের এনামুল হক (৩০), রেজাউল ইসলাম (৩২), ধলু মিয়া (২২), সুমন মিয়া (২০) ও সুজন কাজী (৩০)।

Screenshot 20211104 211210

গোবিন্দগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম মেহেদী হাসান জানান, গতরাতে মেয়েটি তার প্রেমিক শিমুল মিয়ার সঙ্গে পালিয়ে বিয়ে করার উদ্দেশে বের হয়। মহিমাগঞ্জ এলাকায় আসার পর তাদের পথ রোধ করে এনামুল, রেজাউল, ধলু, সুমন ও সুজন। পরে দুজনকে নিজের বাড়ি নিয়ে যায় ধলু। সেখানে তারা মেয়েটিকে ধর্ষণের চেষ্টা করলে শিমুল বাধা দেয়। তাদের অনুরোধ করে তার প্রেমিকার সর্বনাশ না করতে। কিন্তু তারা কথা না মেনে শিমুলের সামনেই তার প্রেমিকাকে গণধর্ষণ করে।

ওসি মেহেদী আরও জানান, পরে সেখান থেকে ছাড়া পেয়ে রাত ৩টার দিকে শিমুল তার প্রেমিকাকে নিয়ে থানায় এসে মৌখিক অভিযোগ করে। তার পরিপ্রেক্ষিতে অভিযান চালিয়ে ওই পাঁচজনকে আটক করা হয়। এ ছাড়া শিমুলকেও আটক করা হয়েছে। ভুক্তভোগীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। প্রতিবেদন এলে মামলা রেকর্ড করা হবে।

 

গাজীপুরের শ্রীপুরে পিকআপ চাপায় ৩ জনের মৃত্যু

Related Posts
1 of 151

pc rd 5 11 21

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক এলাকায় মুরগিবাহী পিকআপ চাপায় তিনজনের মৃত্যু। ছবি : আমাদের সময়
advertisement

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার এমসি বাজার এলাকায় মুরগিবাহী পিকআপ চাপায় তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১টা ২০ মিনিটে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক এলাকায় দুর্ঘটনাটি ঘটে।

নিহতরা হলেন- ময়মনসিংহ জেলার পাগলার থানার দেউলপাড়া গ্রামের মৃত শহর আলীর ছেলে তোফাজ্জল হোসেন (৩৫), চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গা থানার পাইকপাড়া গ্রামের মো. আবুল হোসেনের ছেলে আব্দুল মজিদ জনি (৩২) ও খুলনা জেলার পাইকগাছা থানার ফতেহপুর গ্রামের আব্দুল হকের ছেলে ইব্রাহীম হাবিব (৩২)। তারা শ্রীপুর পৌরসভার দুই নং সিএন্ডবি বাজার এলাকায় ভাড়া থেকে বিভিন্ন বাজারে ভ্রাম্যমাণ দোকানে মালামাল বিক্রি করতো।

মাওনা হাইওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হাদিউল ইসলাম জানান, নিহত ও আহতরা বিভিন্ন ওয়াজ মাহফিলসহ হাট-বাজারে তসবি, জায়নামাজ, সুগন্ধি, টুপিসহ নামাজের নানা উপকরণ বিক্রি করতো। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে নিহতরা একটি ওয়াজ মাহফিল থেকে ফিরে এমসি বাজার এলাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের ফুটপাতে দাঁড়িয়ে ছিল। এসময় বেপরোয়া গতির একটি মুরগীবাহী পিকআপ তাদের চাপা দিলে জনি ও ইব্রাহীম হাবিব ঘটনাস্থলেই মারা যান। তোফাজ্জলকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে মৃত্যুবরণ করেন।

মাওনা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কামাল হোসেন বলেন, ঘটনাস্থল থেকে পিকআপটি আটক করা গেলেও চালক পালিয়ে গেছে। নিহত তিনজনের স্বজনরা থানায় এসেছেন। তাদের অভিযোগের ভিত্তিতে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More