চুরি হওয়া নবজাতককে ১৬ ঘণ্টা পর ফিরে পেলেন মা  

চুরি হওয়া নবজাতককে ১৬ ঘণ্টা পর ফিরে পেলেন মা

মায়ের কোল থেকে চুরি হওয়া নবজাতক দীর্ঘ ১৬ ঘণ্টা পর মায়ের কোলে ফিরে এসেছে। ঝিনাইদহের র‌্যাব আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নবজাতককে উদ্ধার করে মায়ের কোলে তুলে দিয়েছে। কালীগঞ্জ শহরের নিশ্চিন্তপুর এলাকার জনৈক রফি উদ্দিনের বাড়ি থেকে নবজাতককে উদ্ধার করা হয়।

নবজাতক চুরির সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে পিয়া খাতুন (৩০) নামের এক নারীকে আটক করেছে র‌্যাব। তিনি কালীগঞ্জ শহরের ঢাকালেপাড়া এলাকার জাহাঙ্গীর আলমের স্ত্রী বলে জানিয়েছেন। গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় শহরের সেবা ক্লিনিক থেকে সদ্য ভূমিষ্ঠ নবজাতক চুরি হয়।  শিশুসন্তানটিকে পেয়ে মায়ের আনন্দ যেন আর ধরছে না। নিজে অসুস্থ থাকলেও সন্তানকে জড়িয়ে ধরে চুমু খাচ্ছেন অনবরত। ওই মা প্রশাসন, সাংবাদিকসহ সবাইকে ধন্যবাদ দেন।.

Related Posts
1 of 151

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ পৌরসভার বলিদাপাড়া গ্রামের মনিরুজ্জামান বাবু তাঁর স্ত্রী শাবানা খাতুনের প্রসবব্যথা দেখা দিলে গতকাল কালীগঞ্জ শহরের সেবা ক্লিনিকে নিয়ে আসেন। আড়াইটার দিকে অস্ত্রোপচারে ফুটফুটে এক মেয়ের জন্ম দেন শাবানা। মনিরুজ্জামান বাবুর ভাষ্য, বাচ্চার জন্মের সময় পরিবারের অনেকেই হাসপাতালে ছিলেন। ঘটনার সময় সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে সবাই ইফতার করতে গেলে বোরকা পরা এক নারী এসে শিশুটিকে চুরি করে নিয়ে যান। এ সময় মা শাবানা অচেতন ছিলেন।

ঝিনাইদহ র‌্যাব-৬-এর কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. কামাল উদ্দিন বলেন, আজ সকালে খবর আসে নবজাতকটিকে কালীগঞ্জ শহরের নিশ্চিন্তপুর এলাকার একটি বাড়িতে লুকিয়ে রাখা হয়েছে। এ খবর পেয়ে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তাঁরা অভিযান চালিয়ে রফি উদ্দিনের বাড়ি থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করেন। আটক পিয়া খাতুনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More