ঠাকুরগাঁওয়ে তরুণীকে চুল কেটে-বিবস্ত্র করে নির্যা,তন

ঠাকুরগাঁওয়ে তরুণীকে চুল কেটে-বিবস্ত্র করে নির্যা,তন

 

Related Posts
1 of 151
ভুক্তভোগী নারীর চুল কেটে দিয়েছে অভিযুক্তরা ঢাকা ট্রিবিউন

নির্যাতনের শিকার তরুণীকে মাঝে মাঝে ‘জিনে ধরে’ বলে দাবি অভিযুক্তদের

ঠাকুরগাঁওয়ের রোড বাজার এলাকায় চুল কেটে, বিবস্ত্র করে এক তরুণীকে (২০) নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার (৬ নভেম্বর) রাতে এ ঘটনা ঘটে। রবিবার এ ঘটনায় শহরের খালপাড়ার বাসা থেকে আলম (৫২) নামে এক অভিযুক্তকে আটক করেছে পুলিশ।

নির্যাতনের বর্ণনা দিয়ে ভুক্তভোগী তরুণী জানান, শনিবার রাতে তাকে অভিযুক্ত আলমের বাসায় ডেকে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে আলমসহ আরও সাতজন নারী-পুরুষ মিলে তাকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন করে। একপর্যায়ে তার মাথার সব চুল কেটে দেয় অভিযুক্তরা। বার বার ছেড়ে দেওয়ার আকুতি জানালেও তার কথা শোনেনি কেউ।

এই বর্বরতার বিচার চেয়ে ওই তরুণী বলেন, “আমি কোনো দোষ করিনি। আমাকে অযথা ধরে নিয়ে গিয়ে এভাবে মারধর করল। আমার কাপড় ছিঁড়ে চুল কেটে দিলো।”

এ বিষয়ে অভিযুক্ত আলমের বলেন, “আমার মেয়ের সঙ্গে ওই মেয়ের অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে। সেজন্য আমি মেয়ের বিয়ে দিতে পারছি না। তাই মেয়েটিকে ডেকে নিয়ে জিঙ্গাসাবাদ শুরু করি কিন্তু সে সব অস্বীকার করে। তাই আমার মেয়ে আর প্রতিবেশী মোবারক আলী মেয়েটিকে কয়েকটা চর-থাপ্পড় দিয়ে চুল কেটে দিয়েছে।”

তিনি আরও দাবি করেন, “ওই মেয়েকে (নির্যাতনের শিকার) মাঝে মাঝে জিন ধরে।”

এ ঘটনার নিন্দা জানিয়ে সুষ্ঠু বিচার দাবি করেছে এলাকাবাসী।

স্থানীয় বাসিন্দা সালাম জানান, “ভুক্তভোগী মেয়েটির বাবা নেই। মা-মেয়ে কাজ করে খায়। এভাবে অদ্ভুত একটা দায় চাপিয়ে মেয়েটিকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন করা ঠিক হয়নি।”

এ বিষয়ে ঠাকুরগাঁও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তানভীরুল ইসলাম জানান, “বিষয়টি জানার পরেই আমি ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। ঘটনাস্থলে একজনকে পাওয়া গেলেও বাকিরা পালিয়ে গেছে। এই বিষয়ে মেয়ের মা বাদী হয়ে থানায় এটি অভিযোগ দায়ের করেছে।”

কপিরাইট আইনে জেমসের মামলা, বাংলালিংকের বিরুদ্ধে সমন জারি

jemes n234m

বিনোদন ডেস্ক- মোবাইল অপারেটর বাংলালিংকের বিরুদ্ধে কপিরাইট আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে মামলা করেছেন শীর্ষ সংগীত তারকা জেমস। আজ বুধবার (১০ নভেম্বর) ঢাকার নিম্ন আদালত মামলাটি গ্রহণ করেন।

এ মামলায় সমন জারি করে বাংলালিংককে হাজির হতে আদেশ দিয়েছেন ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদালত।

সংশ্লিষ্ট আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর তাপস কুমার পাল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে বেলা ১১টা ৫০মিনিটে মামলা করতে ঢাকার নিম্ন আদালতে হাজির হয়েছেন এই রকস্টার।

এর আগে ১৯ সেপ্টেম্বর বাংলালিংকের বিরুদ্ধে কপিরাইট আইনে মামলার আরজি নিয়ে একই আদালতে গিয়েছিলেন জেমস। আদালত তার মামলার আবেদন গ্রহণ না করে গুলশান থানায় মামলা করার নির্দেশ দিয়েছিল।

জেমসের অভিযোগ, তার বিভিন্ন জনপ্রিয় গান বিজ্ঞাপনসহ বিভিন্ন মাধ্যমে অনুমতি ছাড়াই ব্যবহার করেছে বাংলালিংক।

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More