ও’সি’র সা’থে প’রকী’য়া, ম’হি’লা ক’নস্টেব’ল স’ন্তা’ন নিয়ে ও’সি’র দ’রজা’য় দ’রজা’য় ঘু’র’ছে

ও’সি’র সা’থে প’রকী’য়া, ম’হি’লা ক’নস্টেব’ল স’ন্তা’ন নিয়ে ও’সি’র দ’রজা’য় দ’রজা’য় ঘু’র’ছে

নারায়ণগঞ্জে মডেল থানার ওসি আব্দুর রহমান। কনস্টেবল রুনা আক্তার নামে এক মহিলার সাথে প’রকীয়া করে অনেকদিন যাব’ত এখন তার বাচ্চা হাতে নিয়ে কনস্টেবল রুনা আক্তার দ্বারে দ্বারে ঘুরছে বিচার চেয়ে।

কিন্তু কিছুতেই কোন লাভ হচ্ছে না তার কেউই তার কথায় বিশ্বা’স করতে চায় না। এদিকে ওসি প্রথমের দিকে তাকে বিভিন্ন প্রমোশনের লোভ-লালসা দেখিয়ে প্রেমের প্রস্তাবনা দেয় তাকে পছন্দ করে। অনেকদিন ধরে তাদের এই প্রেম চলে এক সময় এই প্রেমের ফল রুনা আক্তার এর পেটে আসে বাচ্চা। রুনা আক্তার যখন ওসিকে বলে তার বাচ্চা পৃথিবীতে আসবে তখন ওসি আব্দুর রহমান তাকে গ্রহণ করতে চায় না।

এসময় তিনি বলেন এই বাচ্চা আমা’র নয় এর বি’ষয়ে আমি কোন কিছু জানিনা। ওসি আব্দুর রহমান অ’স্বী’কার করে পুরো ঘটনাটি কে। পরে ডিএনএ টেস্ট করার কথা বললে আব্দুর রহমান বলেন এই বাচ্চা যখন আমা’র নয় তাহলে ডিএনএ টেস্ট করার কথা কেন উঠছে এখানে। পরে তিনি হাইকোর্টে ওসি আব্দুর রহমানের নামে মা’মলা করে পু’লিশ তা পরে সত্যতা যাচাই করার জন্য ইনভেস্টিগেশন করে কথাটা কতটুকু

সত্য তা আছে তা। পরে জানা যায় বাচ্চাটি আব্দুর রহমানের। জর্জ তখন রুনা আক্তার কে গ্রহণ করার জন্য আদেশ দেয় এবং তা না মানলে তাকে ১০ বছরের জেল দেওয়া হবে। এখন আব্দুর রহমান এর সামনে কোনো পথ খোলা নেই তাই বাধ্য হয়ে তাঁকে রুনা আক্তার কে বিয়ে করতে হলো।

Home আন্তর্জাতিক মালালার বিয়ে হওয়ায় মর্মাহত হয়ে যা বললেন তাসলিমা নাসরিন
মালালার বিয়ে হওয়ায় মর্মাহত হয়ে যা বললেন তাসলিমা নাসরিন

Related Posts
1 of 151

শান্তিতে নোবেল পুরষ্কারজয়ী মালালা ইউসুফজাইয়ের বিয়ের খবরে মর্মাহত বাংলাদেশের নির্বাসিত লেখক তাসলিমা নাসরিন। মঙ্গলবার এক টুইট বার্তায় এমনটাই জানিয়েছেন তিনি।

টুইট বার্তায় তাসলিমা নাসরিন বলেন, ‘মালালা একজন পাকিস্তানি ছেলেকে বিয়ে করায় আমি মর্মাহত। তার বয়স কেবল ২৪ বছর। সে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করছে, এজন্য আমি ভেবেছিলাম সে অক্সফোর্ডের কোনো প্রগতিশীল ইংরেজ হ্যান্ডসাম ছেলের সাথে সম্পর্ক করবে এবং ৩০ বছরের আগে বিয়ের কথা ভাববে না। কিন্তু…।’

এর আগে, বুধবার পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের কর্মকর্তা অ্যাসার মালিককে বিয়ে করেন মালালা ইউসুফজাই। ইংল্যান্ডের বাড়িতেই তাদের বিয়ের অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে বলে জানান মালালা। বরের সঙ্গে দুইটি ছবি নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে পোস্ট করেছেন তিনি।

এ সময় টুইট বার্তায় মালালা লিখেন, ‘আজকের দিনটি আমার জীবনের একটি মূল্যবান দিন। অ্যাসার এবং আমি গাঁটছড়া বেঁধেছি। পরিবারের সঙ্গে বার্মিংহামের বাড়িতে একটি ছোট নিকাহ অনুষ্ঠান উদযাপন করেছি। আমাদের জন্য দোয়া করুন।’

১৯৯৭ সালের ১২ই জুলাই উত্তর-পশ্চিম পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের সোয়াত জেলায় এক সুন্নি মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন মালালা ইউসুফজাই। তার বাবার নাম জিয়াউদ্দিন ও মা তুর পেকাই ইউসুফজাই। ২০১২ সালে স্কুলে যাওয়ার পথে জঙ্গি হামলার শিকার হন মালালা। পরে ওই হামলার দায় স্বীকার করে তেহরিক-ই-তালেবান পাকিস্তান।

শত বাধা ও প্রতিকূলতার মধ্যেও নারী শিক্ষা বিস্তারে সক্রিয় অবদান রাখার জন্য সর্বকনিষ্ঠ হিসেবে ২০১৪ সালের ১০ অক্টোবর শান্তিতে নোবেল পুরস্কার পান মালালা। বর্তমানে তিনি নিজের দাতব্য সংস্থা মালালা ফান্ডের মাধ্যমে মেয়েদের শিক্ষা নিয়ে কাজ করছেন। তার দাতব্য সংস্থা থেকে ২০ লাখ মার্কিন ডলার আফগানিস্তানে মেয়েদের শিক্ষায় সহায়তার জন্য অনুদান দেওয়া হয়েছে।

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More